বিদ্বেষমূলক মন্তব্য: ইবি শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের সুপারিশ

২৬৮
ইবি শিক্ষার্থী
ছবি- আওয়াজবিডি

পবিত্র মক্কা শরীফ ও জমজম কূপকে ‘তথাকথিত’ মক্কা ও জমজম বলে তাচ্ছিল্য করে বিদ্বেষমূলক স্ট্যাটাস দেয়ায় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) এক শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারের সুপারিশ করা হয়েছে। ওই শিক্ষার্থীর নাম সাইফুল্লাহ আল হাদী। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

শনিবার বিভাগের একাডেমিক কমিটির জরুরী সভায় সর্বসম্মতিক্রমে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের কাছে এ সুপারিশ করা হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) দুপুরে নিজ টাইমলাইনে ফ্রান্সের পণ্য বর্জনের বিপক্ষে নিজের যুক্তি উপস্থাপন করেন ওই শিক্ষার্থী। সেই পোস্টে পবিত্র মক্কা শরীফ ও জমজম কূপকে ‘তথাকথিত’ মক্কা ও তথাকথিত জমজম কূপ' বলে উল্লেখ করে তিনি। আপলোডের পর ওই পোস্টে নেতিবাচক মন্তব্য আসতে শুরু করে এবং অল্প কিছু সময়ের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায়। পোস্টের বিপরীতে নিন্দা ও প্রতিবাদ আসতে শুরু করলে সন্ধ্যা ৬ টার দিকে স্ট্যাটাসটি সরিয়ে ফেলেন এবং ক্ষমা প্রার্থনা করে আরেকটি স্ট্যাটাস দেন ওই ছাত্র।

এদিকে এই ঘটনায় ওই ছাত্রের সহপাঠীসহ অন্য শিক্ষার্থীরা ফেসবুকে প্রতিবাদের ঝড় তোলে। এবং বিদ্বেষমূলক মন্তব্য ফেসবুকে ছড়ানোর অভিযোগে শাস্তি দাবি করে।

প্রসঙ্গত, এর আগেও বিভিন্ন সময় ফেসবুকে পর্ন ভিডিও শেয়ার করা, আত্মহত্যার বৈধতা চাওয়া, কোরবানীকে রক্তারক্তির খেলা আখ্যা দেয়াসহ উস্কানি ও বিদ্বেষমূলক বার্তা প্রচারের অভিযোগ রয়েছে ওই শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে।

আরবী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে সভাপতি প্রফেসর ড. মোস্তাক আলী জানান, ‘ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত হয়ে জরুরী মিটিং করেছি। সভার সিদ্ধান্তে তার ছাত্রত্ব বাতিল করে স্থায়ী বহিষ্কারের বিষয়ে সবাই একমত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে সুপারিশ করা হবে। বিষয়টি প্রশাসন দেখবে।’

এসএম/আওয়াজবিডি


mujib_100
ads
আমাদের ফেসবুক পেজ
সংবাদ আর্কাইভ